• Friday, 27 January 2023
সোনাইমুড়ীতে দুই সহদরকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে দিলো এলাকাবাসী

সোনাইমুড়ীতে দুই সহদরকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে দিলো এলাকাবাসী

খোরশেদ আলম, সোনাইমুড়ী প্রতিনিধি:
নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী পৌর এলাকার শিমুলিয়া গ্রামে চুরির প্রতিবাদ করায় দেশীয় অস্ত্র নিয়ে এক ব্যবসায়ীর বাড়িতে সন্ত্রাসী হামলা করায় দুই সহদরকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে এলাকাবাসী। 
 
২৪ জানুযারী মঙ্গলবার বিকাল ৪টার দিকে শিমুলিয়া গ্রামের মফিজ পাটোয়ারীর বাড়িতে।  এ নিয়ে শিমুলিয়া গ্রামের মফিজ পাটোয়ারীর পুত্র ব্যবসায়ী জসিমউদ্দীন দুজনক বিবাদি করে সোনাইমুড়ী থানায় মামলা দায়ের করেছেন। এজাহার সূত্রে জানাযায়, শিমুলিয়া গ্রামের মফিজ পাটোয়ারীর পুত্র চার সহদর  ইউরোপে বসবাস করেন। এসুযোগে বাড়িতে প্রায় সময় চুরির ঘটনা ঘটে থাকে। ইতিপূর্বে চুরি নিয়ন্ত্রণ করতে জসিম উদ্দিন তার সহদরদের বসতঘরে সিসি ক্যামেরা স্থাপন করেন।
 
গত সোমবার (২৩ জানুয়ারি)  রাত ২টার দিকে  সিসি ক্যামেরায় দেখাযায় পাশের বাড়ীর খোকন ভান্ডারির ছেলে আনোয়ার হোসেন নামে(২৬) এক যুবক টর্চ লাইট হাতে বাড়ির উঠানে ঘোরাফেরা করছে। বিষয়টি আনোয়ার হোসেনের অবিভাবকদের পরের দিন জানালে সে ও তার সহোদর জহির (২৪) ক্ষিপ্ত হয়ে ২৪ জানুয়ারী বিকালে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ব্যবসায়ী জসীমউদ্দিন ও তার সহোদর দের বাড়িতে গিয়ে হামলা চালালে এলাকাবাসী গণধোলাই দিয়ে ৯৯৯ এ ফোন দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে।
 
ভুক্তভোগী জসীমউদ্দিন জানান, হামলাকারীরা সঙ্ঘবদ্ধ চোরচক্রের সদস্য। এদের বিরুদ্ধে মামলা করায় এখন তাদের লোকজন অব্যহত হুমকি দিচ্ছে। সোনাইমুড়ী থানার ওসি জিয়াউল হক বলেন, আটককৃত সহোদররা বাদির বাড়িতে চুরির চেষ্টা করে। এ নিয়ে বাদি প্রতিবাদ করলে তার বাড়িতে হামলা চালায়। এ ঘটনায় মামলা রুজু করা হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃতদের বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়ছে।
 

comment / reply_from