• Friday, 27 January 2023
১০ ডিসেম্বর বিএনপির সমাবেশ ‘সফল হতে দেবে না সরকার

১০ ডিসেম্বর বিএনপির সমাবেশ ‘সফল হতে দেবে না সরকার

ডেস্ক রিপোর্ট.

সমাবেশের স্থান নিয়ে বিএনপির সঙ্গে পুলিশের আলোচনা চললেও কঠোর অবস্থান থেকে সরছে না সরকার। ১০ ডিসেম্বর ঘিরে রাজধানী ঢাকাকে ‘অবরুদ্ধ’ করার যে পরিকল্পনা ছিল, সেই ছক ধরেই এগোচ্ছে সরকার। এখন পর্যন্ত পরিকল্পনা হচ্ছে, ১০ ডিসেম্বর ঢাকা ও এর আশপাশের এলাকা কার্যত আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে নেওয়া হবে, যাতে কয়েক স্তরের বাধা ভেদ করে বিএনপির পক্ষে বড় জমায়েত করা অসম্ভব হয়ে পড়ে।

সরকার ও আওয়ামী লীগের নীতিনির্ধারণী সূত্র থেকে জানা গেছে, বিএনপির অন্য বিভাগীয় সমাবেশগুলোতে সরকার ও প্রশাসন পরোক্ষভাবে নানা প্রতিবন্ধকতা তৈরি করেছিল। কিন্তু ঢাকার সমাবেশ ঘিরে সরকারের প্রশাসন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ সরাসরি মাঠে থাকবে। মূল লক্ষ্য হচ্ছে বিএনপি যাতে ঢাকায় সাংগঠনিক শক্তি ও জমায়েত দেখাতে না পারে। এ ক্ষেত্রে সাধারণ মানুষ দুর্ভোগে পড়বে। বিষয়টি সরকার ও আওয়ামী লীগের মাথায় থাকলেও এর বিকল্প ভাবছে না তারা।

বিএনপির সমাবেশ নিয়ে সরকারের কঠোর অবস্থান সমালোচনার জন্ম দেবে, এটা ঠিক। তবে পরিস্থিতি যে সরকারের নিয়ন্ত্রণে আছে, এটাও প্রশাসন ও রাজনৈতিক মহলে বোঝানোর প্রয়োজন মনে করছে সরকার। এখন পরিস্থিতি এমন দাঁড়িয়েছে যে নয়াপল্টনে সমাবেশ করতে চাইলে বিএনপি সেখানে দাঁড়াতেই পারবে না। সোহরাওয়ার্দী উদ্যান কিংবা শহরের উপকণ্ঠে সমাবেশ করতে চাইলে সীমিত আকারে করতে দেওয়া হতে পারে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান গতকাল বলেন, ‘বিএনপিকে তো বলা হয়েছে সড়কে সমাবেশ করা যাবে না। বিকল্প তারা ভাবছে বলল। মিরপুর কিংবা অন্য কোথাও চাইলে দেখা যাবে। এরপরও যদি তারা সড়ক দখল করে সমাবেশ করতে চায়, পুলিশকে তো তা ক্লিয়ার করতেই হবে।’

আওয়ামী লীগ ও পুলিশের পক্ষ থেকে ১০ ডিসেম্বর ঘিরে প্রস্তুতি চলার বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, প্রশাসন ও পুলিশের কাজই হচ্ছে সর্বদা সতর্ক অবস্থানে থাকা। আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা নানা কর্মসূচির কারণে এমনিতেই চাঙা আছেন। তাঁরাও যেকোনো ভাঙচুর ও অগ্নি-সন্ত্রাসের বিষয়ে সজাগ থাকবেন। সূত্র,প্রথম আলো.

 

comment / reply_from